মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং , ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ ||
শিরোনাম :
ফেনীর ছাগলনাইয়ায় বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ ফেনীতে বিশ্ব এইডস দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ফেনীতে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতি কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ কেড়ে নিলো ফেনীর নজরুলের ফেনীতে গাছে গাছে পাখির বাসা করে দিচ্ছে স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন ছাগলনাইয়ায় পুলিশ পরিচয়ে মোটরসাইকেল ছিনতাই ও টাকা আত্মসাৎ’র চেষ্টা, আটক ২ সোনাগাজীতে এতিমের সম্পত্তি দখলের চেষ্টা: লুটপাট, হামলার অভিযোগ, মামলা তুলে নিতে হুমকি করোনা দ্বিতীয় ধাক্কা মোকাবিলায় ফেনী পৌরসভার মাস্ক, স্যানিটাজার সহ সাবান বিতরণ ফেনী সন্তান মতিন ভুঁইয়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক ধর্ষণের শাস্তি থেকে মুক্তি পেতে ফেনী কারাগারেই প্রথম জাকঁজমকপূর্ণ বিয়ে অনুষ্ঠিত
  • প্রচ্ছদ
  • অর্থনীতি >> ছাগলনাইয়া >> দাগনভূঞা >> পরশুরাম >> ফুলগাজী >> ফেনী >> ফেনী সদর >> সোনাগাজী
  • করোনা:আরো ৩ মাস কিস্তি না দিলেও খেলাপি হবে না ঋণ,চাপ নয় পরিশোধে
  • করোনা:আরো ৩ মাস কিস্তি না দিলেও খেলাপি হবে না ঋণ,চাপ নয় পরিশোধে

    করোনা ভাইরাসের কারণে জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ঋণ শ্রেণিকরণের স্থগিতাদেশ দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।তবে মহামারির প্রভাব দীর্ঘায়িত হওয়ায় আরো তিন মাস বর্ধিত করা হয়েছে এই সময়। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত কোনো রঙের শ্রেণি মান পরিবর্তন করা যাবে না। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

    বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কারণে ব্যাংকের ঋণ গ্রহীতাদের জন্য বিশেষ সুবিধার সময় বা‌ড়ি‌য়ে‌ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আগামী সে‌প্টেম্বর পর্যন্ত কোনো ঋণগ্রহীতা ঋণ শোধ না করলেও খেলাপি হবে না।তাকে চাপ প্রয়োগও করা যাবে না। এ‌ সু‌বিধা আগে জুন পর্যন্ত ছিল।

    কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, আগামী সে‌প্টেম্বর পর্যন্ত কোনো ঋণগ্রহীতা ঋণ শোধ না করলেও ঋণের শ্রেণিমানে কোনো পরিবর্তন আনা যাবে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ ‘ঋণ শ্রেণীকরণ’ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করে সব তফসিলি ব্যাংকে পাঠিয়েছে।

    এর ফলে বর্তমানে কোনো ঋণগ্রহীতা যদি ৩০শে সে‌প্টেম্বর পর্যন্ত কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হন, তাহলে তাকে খেলাপি করা যাবে না। তবে যদি কোনো খেলাপি ঋণগ্রহীতা এই সময়ের মধ্যে ঋণ শোধ করেন, তাকে নিয়মিত ঋণগ্রহীতা হিসেবে চিহ্নিত করা যাবে।তবে কাউকে ঋণ পরিষোধে বাধ্য বা চাপ থাকবে না।

    করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) এর কারণে অর্থনীতির অধিকাংশ খাতই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং এর নেতিবাচক প্রভাব দীর্ঘায়িত হওয়ার আশংকা থাকায় অনেক শিল্প, সেবা ও ব্যবসা খাত তাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারছে না।

    সূত্র- দৈনিক মানবজমিন

    আরও পড়ুন

    error: Please Contact: 01822 976776 !!